দেশের স্বার্থে তৃতীয় দফা বিয়ে পেছালেন ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী

বিয়ে করবেন। দিনক্ষণও ঠিকঠাক। কিন্তু এ শুভ কাজ কেবলই পিছিয়ে যাচ্ছে। দু-দু’বার পেছানোর পর তৃতীয়বার কনে সাজার দিনক্ষণ পাকা করলেন, এখানেও সেই বাগড়া।

আবার পেছাতে হল। বিয়ে করতে গিয়ে ঘোরচক্করে পড়া এ মানুষটি ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মিতে ফ্রেডিরিকসেন। তৃতীয় দফা তার বিয়েতে বাদ সেধেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সম্মেলন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার তৃতীয়বারের মতো বিয়ের তারিখ মুলতবি করলেন ৪২ বছর বয়সী এ ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী। এর আগে বিয়ের পরিকল্পনা করোনার সংক্রমণের কারণে বাতিল হয়।

দ্য গার্ডিয়ান জানায়, প্রধানমন্ত্রী ভেবেছিলেন এবার বুঝি তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন। সেটাও আর হল না। প্রেমিক বো তেংবার্গের (৫৫) সঙ্গে নিজের ছবি ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করে ফ্রেডিরিকসেন বলেন, ‘দারুণ এ মানুষটির সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হতে সত্যিই আমি সমুখপানে তাকিয়ে।

কিন্তু স্পষ্টতই এটা সহজে হচ্ছে না। আমরা জুলাই মাসের যে শনিবারে (১৮ জুলাই) বিয়ের দিন ঠিক করেছি, সেদিনই ব্রাসেলসে ইইউ’র বৈঠক।’

ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ওই সম্মেলনে যোগ দেয়ার জন্য ডাক পড়েছে। আমাকে আমার দায়িত্ব পালন করতে হবে। ডেনমার্কের স্বার্থরক্ষা করতে হবে।

তাই আমরা বিয়ের পরিকল্পনা আবার বদলেছি। তিনি আরও বলেন, আমরা শিগগিরই বিয়ে করতে পারব। আমি বোকে সম্মতি জানানোর জন্য অপেক্ষা করছি।

বো খুবই সহনশীল।’ আগামী ১৭ ও ১৮ জুলাই অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে করোনাভাইরাস মহামারী বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে। এর আগে ২০০৩ সালে এরিক হারকে বিয়ে করেন।

২০১৪ সালে ডিভোর্স হয়। এ দম্পতির দুই সন্তান রয়েছে। গত বছর মধ্য বামপন্থী সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক দলের নেতা ফ্রেডিরিকসেন ডেনমার্কের সবচেয়ে তরুণ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় বসেন।

ডেনমার্কে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ১২ হাজার ৬৭৫ জন এবং মারা গেছেন ৬০৪ জন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top